খাদ্য-খাবারে বরকত অর্জন করার উদ্দেশ্যে ইসলাম কী বলে ?

Uncategorized প্রশ্ন ও উত্তর

খাদ্য-খাবারে বরকত অর্জন করার উদ্দেশ্যে যখন রান্না করার জন্য। খাদ্য-শস্য স্টক থেকে নিবে তখন মেপে নিবে, যাতে প্রয়ােজনের অতিরিক্ত

যায়। তবে স্টকে কি পরিমাণ রইল তা মেপে দেখবে না। এক রেওয়ায়েতে এসেছে

عن المقدام بن معدیکرب رض قال : قال رسول الله صلى الله عليه وسلم : كيلوا طعام يبارك لكم. (رواه البخاري في كتاب البيوع – باب ما يستحب من الكيل ۲۱۲۸)

অর্থাৎ, হযরত মিকুদাম ইবনে মা’দীকারিব (রা.) বর্ণনা করেন যে, রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন, তােমরা তােমাদের খাদ্য-শস্য মেপে নিয়াে, তাহলে তােমাদের বরকত হবে। (বােখারী)।

আল্লাহ সুয়ুতী (রহ.) বলেছেন, এর অর্থ হল খাদ্য-শস্য স্টক থেকে নেয়ার সময় মেপে নিবে, যাতে প্রয়ােজনের অতিরিক্ত না যায় বা প্রয়ােজনের চেয়ে কম না হয়। তবে স্টকে কি পরিমাণ রইল তা মেপে দেখবে না” সেটাকে মাপা ছাড়াই রেখে দিবে। | খাদ্য-খাবারে বরকত অর্জন করার জন্য খাবার শুরু করার পূর্বে আল্লাহর নাম নিয়ে ও আল্লাহ কর্তৃক বরকত দানের বিষয়ে দুআ করে খাবার জন্ম করার শিক্ষা দেয়া হয়েছে। খাদ্য-খাবার সামনে আসলেও এরূপ ‘ রয়েছে। খাদ্য-খাবার শুরু করার সময়ও এরূপ দুআ রয়েছে।খাদ্য-খাবার সামনে এলে নিম্নোক্ত দুআ পাঠ করা সুন্নাত। এই দুআ। পাঠ করলে খাদ্য-খাবারে বরকত হবে।

اللهم بارك لنا فيما رزقتنا وقنا عذاب النار. (كتاب الأذكار عن ابن السني باب ما يقول إذا قرب إليه طعامه)

অর্থঃ হে আল্লাহ, তুমি আমাদেরকে যে রিযিক দান করেছ তাতে। আমাদেরকে বরকত দাও এবং জাহান্নামের আগুন থেকে আমাদেরকে রক্ষা কর। (কিতাবুল আযকার)।

খাদ্য-খাবার শুরু করার পূর্বে নিম্নোক্ত দুআ পাঠ করে নিবে। তাহলে খাদ্য-খাবারে বরকত হবে।

بشم الله وبركة الله. (رواه الحاكم في المستدرك برقم ۷۲۳۶ وقال : صحيح الإسناد و أقره عليه الذهبي في التلخيص : صحیح)

অর্থাৎ, আল্লাহর নামে, আল্লাহর বরকতের উপর খাওয়া শুরু করছি।। (মুস্তাদরকে হাকিম)।

উপরােক্ত দুআটি জোরে পড়া মােস্তাহাব, যাতে অন্যরাও শুনতে পারে।

(تكملة ج/4)

দুআটি শুরুতে পড়তে ভুলে গেলে এবং খাওয়ার মাঝে স্মরণ হলে পড়বে

بسم الله أوله واخره. (أبو داود في كتاب الأطعمة – باب التسمية على الطعام . وفي رواية الترمذي بل في أكثر الروايات بسم الله في أوله وآخره)

অর্থাৎ, আমি এর প্রথমে ও শেষে আল্লাহর নাম নিলাম। (আবু দাউদ)। দুধ, চা, কফি, মাঠা পান করার সময় নিম্নোক্ত দুআ পড়বে।

اللهم بارك لنا فيه وزدنا منه. ( رواه الترمذي في أبواب الدعوات – باب ما يقول

অর্থাৎ, হে আল্লাহ, আমাদের জন্য এতে বরকত দাও এবং আমাদেরকে এটা আরও বেশি করে দাও। (তিরমিযী)।

“যদি জীবন গড়তে চান”

এই বইটি থেকে আমাদের এই পোস্টি নেওয়া । এই হাদীছ বিষয়ে আরো বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করা হয়েছে এই বইটি মধ্যে ,বইটি নিতে চাইলে যে কোনো
ইসলামিক লাইব্রেরী থেকে সংগ্রহ করতে পারেন । বইটি লিখেছেন..

মাওলানা মুহাম্মাদ হেমায়েত উদ্দীন।

গ্রন্থকার, আহকামে যিন্দেগী, ফাযায়েলে যিন্দেগী, বয়ান ও খুতবা, ইসলামী আকীদা ও ভ্রান্ত মতবাদ,

ফিকহুন্ নিছা, আহকামে হজ্জ, কুরআন হাদীছ ও ইসলামী ইতিহাসের মানচিত্র ও ইসলামী মনােবিজ্ঞান প্রভৃতি।

বিদ্র্যঃ
আমাদের টাইপিং এ কোনো ভুল হয়ে থাকলে ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখবেন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *